শিলাবৃষ্টি-তাপমাত্রা নিয়ে আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা

প্রকৃতিতে শীতের প্রভাব অনেকটা কেটে গেছে। পড়তে শুরু করেছে গরম। যদিও বসন্তের হিমেল বাতাসে রাত থেকে সকাল পর্যন্ত এখনও ঠান্ডা অনুভূত হচ্ছে। বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) কুমিল্লা ও হবিগঞ্জসহ কিছু কিছু জায়গায় বৃষ্টি হয়েছে। এবার দুদিন শিলাবৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এ সময় কমবে তাপমাত্রা। তবে এখনও কুয়াশা পড়ার সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে। বুধবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে কিশোরগঞ্জের নিকলিতে ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে বাগেরহাটের মংলায় ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এ সময় ঢাকার সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে যথাক্রমে ২২ দশমিক ৩ ডিগ্রি ও ৩১ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
এদিন সন্ধ্যা  ৬টা থেকে পরবর্তী  ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পশ্চিম লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। ভোরের দিকে দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারেন।
প্রথম দিনে ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। পাশাপাশি কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টিও পড়তে পারে। চট্টগ্রাম বিভাগে রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি বাড়লেও অন্য জায়গায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। তবে দিনের তাপমাত্রা কমবে।
দ্বিতীয় দিনে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং রাজমাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসসহ বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। একইসঙ্গে কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকলেও রাতে কমতে পারে।
তৃতীয় দিনে ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় বৃষ্টি বা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া দেশের অন্য জায়গায় আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে। রাত ও দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। বর্ধিত পাঁচ দিনের প্রথম দিকে বৃষ্টিপাতের প্রবণতা হ্রাস পেতে পারে বলে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন