কলেজে ভর্তি: পিন নম্বর না পেলে যা করতে হবে

কাদশ শ্রেণিতে ভর্তির সফটওয়্যারে লিঙ্গ অপশন নিয়ে জটিলতায় এবার আবেদন শুরুই হয় নির্ধারিত সময়ের অন্তত দুইদিন পর। তারপর দেখা দেয় পেমেন্ট বিষয়ক জটিলতা।  গত শুক্রবার থেকে পিন নম্বর পাওয়া নিয়ে ভোগান্তিতে পড়েন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি, আবেদন সাবমিট করার পর মোবাইলে কোনো পিন নম্বর আসছে না। তবে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের দাবি , গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক জনিত সমস্যার কারণে এ বিড়ম্বনার সৃষ্টি হয়েছে।
রোববার (২ জুন) আন্তঃশিক্ষা সমন্বয় বোর্ড সভাপতি এবং ঢাকা মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার  দৈনিকশিক্ষাডটকমকে  বলেন, গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক সমস্যার কারণে শিক্ষার্থীদের মোবাইলে এসএমএস যাচ্ছিল না। তবে আমরা সেটি সমাধান করেছি। নতুন একটি অপারেটরের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পিন নম্বর পাঠানো হচ্ছে।
যে সকল শিক্ষার্থী এখনো পিন নম্বর পাননি, তাদের রোল-রেজিস্ট্রেশন এবং আবেদনের সময় দেওয়া মোবাইলসহ শিক্ষা বোর্ডে যোগাযোগের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। অধ্যাপক তপন কুমার জানান, আমাদের কাছে অভিযোগ নিয়ে আসলে আমরা দ্রুত এটি সমাধান করে দেব।
গত ২৬ মে সকাল ৯টা থেকে অনলাইনে কলেজে ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার কথা ছিল। তবে সার্ভার জটিলতার কারণে একদিন পর ২৭ মে থেকে আবেদন শুরু হয়। বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৫ লাখ শিক্ষার্থী অনলাইনে ভর্তির আবেদন করেছেন।
শিক্ষাসহ সব খবর সবার আগে জানতে দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেলের সঙ্গেই থাকুন। ভিডিওগুলো মিস করতে না চাইলে এখনই দৈনিক আমাদের বার্তার ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল বাটন ক্লিক করুন। বেল বাটন ক্লিক করার ফলে আপনার স্মার্ট ফোন বা কম্পিউটারে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভিডিওগুলোর নোটিফিকেশন পৌঁছে যাবে।

বিজ্ঞাপন