কাজিপুরে মাঠ জুড়ে গমের সবুজ পাতার সমারোহ, বাম্পার ফলনের আশা

সিরাজগঞ্জের কাজিপুরে গম চাষের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। গত বছরের তুলনায় এ বছর কাজিপুর উপজেলায় গমের ব্যাপক চাষ করা হয়েছে। গরমে সবুজ পাতার সমারোহ কাজিপুর উপজেলার মাঠ জুড়ে দেখা যাচ্ছে। গমচাষিরা আশা করছেন এবার প্রতি বিঘা জমিতে ১০ থেকে ১২ মণ করে গমের ফলন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সেইসঙ্গে বাজারে তুলনামূলক অনেক বেশি দাম পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এবার যারা গম চাষ করেছেন তারা ভালো স্বাবলম্বী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

জানা গেছে, অনেক কৃষক আমন ধান তোলার পরে চাষিরা আলু বা সরিষার আবাদ না করে গম চাষ করেছেন। উপজেলার বিভিন্ন মাঠ ঘুরে দেখা যায়, গম চাষের সমারোহ মাঠ জুড়ে শোভা পাচ্ছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে গমে পাক ধরতে শুরু করবে। অথচ কালের বিবর্তনের দিন দিন বিলুপ্তির পথে যেতে বসেছিল গম চাষ। এক সময় কাজিপুর উপজেলায় প্রায় প্রতিটি মাঠে ব্যাপক হারে গমের চাষ হতো। কিন্তু বর্তমানে কৃষক ভূট্টা চাষের দিকে বেশি ঝুঁকেছে। যার ফলে দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে গমের চাষ। কিন্তু গত কয়েক বছরে কাজিপুরে চাহিদার তুলনায় ভালোই গমের আবাদ হচ্ছে।

কাজিপুর ইউনিয়নের মেঘাই গ্ৰামের হেলাল উদ্দিন বলেন, গম চাষ করে গত বছর ভালো ফলন হয়েছে। দেড় বিঘা জমিতে গম চাষ করে পেয়েছেন ১৫ মণ। আশা করছি এবারও ভালো হবে। চরছিন্না গ্ৰামের গম চাষি আমজাদ হোসেন বলেন, এ বছর সরিষা চাষ না করে সেই জমিতে গম চাষ করেছি। গমের চাষ ভালো হয়েছে। গম চাষ করতে প্রতি বিঘা খরচ হয়েছে ১২ থেকে ১৫ হাজার টাকা। তবে সারের দাম বেশি না হলে আরও খরচ কম হতো। এবার গম চাষে তেমন রোগবালাই নাই। কিন্তু পেয়ে বসেছে ইঁদুরের হানা। কিছুতেই রোধ করা যাচ্ছে না এদেরকে। গরমে গাছ কেটে সাবাঢ করে দিচ্ছে ইঁদুর।

কাজিপুর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ শরিফুল ইসলাম বলেন, আগামীতে প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে চলতি মৌসুমে এ এলাকায় গমের বাম্পার ফলন হবে। আটার চাহিদা মেটাতে এ অঞ্চলে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি জমিতে গমের আবাদ হয়েছে। আমরা চাষিদের মাঝে গমের চাষ করার জন্য উদ্বুদ্ধ করছি। আশা করছি আগামী বছরে এ উপজেলায় প্রচুর গমের আবাদ হবে। তিনি আরো বলেন, গম চাষে কৃষক পর্যায়ে প্রশিক্ষণসহ উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার, সার, সেচ ও উন্নতমানের বীজ সরবরাহ নিশ্চিত করা হয়েছে।

কাজিপুর উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর ১ টি পৌরসভা ও ১২ টি ইউনিয়নে ৩শ' ৬০ হেক্টর জমিতে গমের আবাদ করা হয়েছে। 

বিজ্ঞাপন