ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে ইরানের হামলা শুরু

সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে নিজেদের দূতাবাসে ইসরায়েলি বিমান হামলার প্রতিশোধ নিতে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা শুরু করেছে ইরান। শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতে ইরানের ড্রোন নিক্ষেপ করার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্স (আইডিএফ)। খবর বিবিসির।
ইসরায়েলের চ্যানেল ১২ টিভি বলছে, ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে কয়েক ডজন ড্রোন ছুড়েছে ইরান। নিক্ষেপ করা ড্রোনগুলো আজ স্থানীয় সময় রাত ২টায় আঘাত হানবে ইসরায়েল ভূখণ্ডে। সব ধরনের হামলা পর্যবেক্ষণে রেখে দেশটির প্রতিরক্ষা বাহিনী সতর্ক অবস্থানে আছে বলেও জানিয়েছে সংবাদ মাধ্যমটি।
ইরানের ড্রোন নিক্ষেপের পর ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু জানান প্রতিরক্ষার জন্য তারা সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়ে রেখেছেন। তিনি বলেন, ‘আক্রমণ অথবা প্রতিরক্ষা, আমরা সবকিছুর জন্য প্রস্তুত। ইসরায়েল রাষ্ট্র শক্তিশালী। আইডিএফ শক্তিশালী। এখানকার জনগণ শক্তিশালী। ইসরায়েলের পাশে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান এবং ব্রিটেন, ফ্রান্সসহ অন্যান্য দেশের সমর্থনকে সাধুবাদ জানাই।’
গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে অবস্থিত ইরানি কনস্যুলেটে ভয়াবহ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইসরায়েল। এতে বিপ্লবী গার্ডের দুই কমান্ডারসহ ৭ উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা নিহত হন। এরপরই হামলার জবাব দিতে সরাসরি ইসরায়েলে হামলার প্রস্তুতি শুরু করে ইরান।
এর আগে ইরানের হামলার খবর আঁচ করতে পেরে সতর্ক করে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছিলেন, আমি হামলা নিয়ে নিশ্চিত তথ্য পেতে চাই না। তবে ধারণা করছি, শিগগিরই এ হামলা চালানো হবে।
বাইডেন বলেন, ‘আমরা ইসরায়েলকে রক্ষা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এই রাষ্ট্রটির প্রতি সবসময় আমাদের সমর্থন থাকবে। ইসরায়েলকে রক্ষা করতে আমরা অবশ্যই সহযোগিতা করব এবং ইরান সফল হতে পারবে না।’

বিজ্ঞাপন