নন্দীগ্রামে করোনার উপসর্গ নিয়ে গার্মেন্টস কর্মীর মৃত্যু

৬০

 

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি :
বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় করোনার উপসর্গ নিয়ে শফিকুল ইসলাম (৩০) নামের গাজীপুরফেরত এক গার্মেন্টস কর্মীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি ওই গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে।

গত রোববার রাতে উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের বীরপলি গ্রামের নিজ বাড়িতেই সে মারা যায়। করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ায় গ্রামের অনেক লোকজনই তার দাফন-কাফনে রাজি হয়নি এবং তার কাছেও কেউ যা”েছ না।

¯’ানীয়রা জানায়, নন্দীগ্রাম উপজেলার বীরপলি গ্রামের শফিকুল ইসলাম গাজীপুর কণাপাড়ায় একটি গার্মেন্টসে কাজ করত। এক সপ্তাহ আগে তিনি সর্দি ও জ্বর নিয়ে বাড়িতে চলে আসেন। এ অব¯’ায় এলাকার লোকজন তাকে বাইরে বের হতে নিষেধ করেন। পরে জ্বর ও সর্দি নিয়ে রোববার রাতে তার নিজ বাড়িতেই মৃত্যু হয়। করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার কারণে তার দাফনে গ্রামের অধিকাংশ লোকজনই এগিয়ে আসেনি এবং তার কাছেও অনেকেই যায়নি। পরে আত্মীয়-স্বজনরা তার দাফন সম্পন্ন করেছে। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন নমুনা সংগ্রহ করা হয়নি।

এবিষয়ে উপজেলা স্বা¯’্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. তোফাজ্জল হোসেন মন্ডল বলেন, করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়ার বিষয়টি শুনেছি। স্বা¯’্যবিভাগ থেকে তার বিষয়ে খোজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যব¯’া নেয়া হবে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.