সবজি-পেঁয়াজের মূল্য স্থিতিশীল দাম কমেছে মুরগির

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ায় সোমবার থেকে চলছে সারাদেশে এক সপ্তাহের লকডাউন। গত বছরের লকডাউনে কাঁচা বাজারসহ নিত্য পণ্যের দাম বাড়লেও এবারের লাকডাউনে বেশিরভাগ পণ্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে। পেঁয়াজ, আলু, গরুর মাংসসহ বেশিরভাগ পণ্যের দাম স্থিতিশীল রয়েছে মুরগির মাংসের দাম প্রতি কেজিতে কমেছে ২০ টাকা। বুধবার (৭ এপ্রিল) সকালে রাজধানীর ফার্মগেট, রাজাবাজার এবং মোহাম্মদপুর কাঁচা বাজারে সরেজমিন ঘুরে এমন চিত্র দেখা যায়।

ফার্মগেটে বাজার করতে আসা আসলাম হক বলেন, ভেবেছিলাম এবারের লকডাউনে কাঁচা বাজারের দাম বাড়বে কিন্তু এ দুইদিনেও দাম স্থিতিশীল লক্ষ্য করছি। লকডাউনের আগে আলু ২০, পেঁয়াজ ৪০, গরুর মাংস ৬০০, কাঁচা মরিচ ১০০ টাকা কেজি দরে কিনেছি আজকেও এই দামেই বাজার করলাম। তবে মুরগির মাংসের দাম একটু কমেছে ব্রয়লার মুরগি লকডাউনের আগে ছিল ১৮০ টাকা, এখন ১৫০-১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মোহাম্মদপুর কাঁচা বাজারের ব্যাবসায়ী আব্দুল আলীম বলেন, প্রায় সব মালের দাম একই আছে, কোন মালের দাম বাড়েনি। লকডাউনের আগের দিন ক্রেতারা বেশি বাজার করায় দাম একটু বেড়েছিল। মুরগি ব্যাবসায়ী আনিছুর রহমান বলেন, আমাদের কেনা দিয়ে বেচা, যেদিন যে দামে কিনি তারচেয়ে কিছু টাকা লাভ করে বিক্রি করি। দেশী মুরগি কয়দিন আগে ৩০০ টাকার উপরে ছিলো এখন ২৮০-৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ব্রয়লার মুরগি ১৮০ টাকা ছিলো এখন ১৫০-১৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.