আবারো শৈত্যপ্রবাহ, তাপমাত্রা নামতে পারে ৬ ডিগ্রিতে!

১৫

দেশের উত্তরাঞ্চলে বইতে শুরু করেছে শৈত্যপ্রবাহ। গত দুদিনে তাপমাত্রা কিছুটা বাড়লেও তা আবার কমতে শুরু করেছে। এতে আবারও নতুন করে কিছু এলাকা শৈত্যপ্রবাহের কবলে পড়তে পারে। আর এটি বিস্তার লাভ করে মধ্যাঞ্চলে ছড়িয়ে পড়তে পারে। মৃদু থেকে মাঝারি মাত্রার এই শৈত্যপ্রবাহে তাপমাত্রা নেমে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে আসতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়াবিদ।
আজ রোববার (২৭ ডিসেম্বর) দেশের ১০টি জেলায় তাপমাত্রা কমে ১০ এর নিচে এসেছে এবং আরও ১১ জেলার তাপমাত্রা এখন ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মাঝে অবস্থান করছে। আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান সংবাদমাধ্যকে বলেন, ‘এই শৈত্যপ্রবাহ তিন থেকে চারদিন থাকতে পারে। এটি মৃদু থেকে মাঝারি মাত্রার হতে পারে। তাপমাত্রা ৮ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নামতে পারে।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিশেষ করে উত্তরাঞ্চল, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চল ও মধ্যাঞ্চলের কিছু এলাকার তাপমাত্রা বেশি নামতে পারে। অন্য এলাকায় তাপমাত্রা কমলেও খুব বেশি কমবে না।’

আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও আশেপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমি লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এর প্রভাবে অস্থায়ীভাবে আকাশ মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। এছাড়া দেশের অন্য এলাকার কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানায়, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও আশপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমি লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। এর প্রভাবে অস্থায়ীভাবে আকাশ মেঘলাসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত নদী অববাহিকার কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। এছাড়া দেশের অন্য এলাকার কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। আজ দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে রাজশাহীতে ৭ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া চুয়াডাঙ্গায় ৭ দশমিক ৯, তেঁতুলিয়ায় ৮ দশমিক ১, শ্রীমঙ্গল ও বদলগাছিতে ৮ দশমিক ৪,ঈশ্বরদিতে ৮ দশমিক ৭, যশোরে ৮ দশমিক ৮, কুমারখালীতে ৯ দশমিক ৪, দিনাজপুরে ৯ দশমিক ৫ এবং গোপালগঞ্জ এ ৯ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.