সাংসারিক কাজের জন্য স্ত্রীকে অর্থ পরিশোধের নির্দেশ আদালতের

চীনের বেইজিংয়ের ফাংশান জেলা আদালত (Fangshan District Court) আদালত সম্প্রতি একটি ব্যতিক্রমী রায় দিয়েছেন। চেন নামের এক ব্যক্তি তার স্ত্রী ওয়াংকে তালাক দিতে চেয়েছিলেন। কিন্তু স্ত্রী তাতে রাজি হচ্ছিলেন না। পরে তিনি রাজি হন। তবে তিনি জানান, ৫ বছরের সংসার জীবনে স্বামী সংসারের কাজ ভাগাভাগি করেননি। সব কাজ তাকে করতে হয়েছে। সে জন্য ক্ষতিপূরণ দাবি করেন তিনি।
গত বছর দায়ের করা সে মামলার রায় এবার স্ত্রীর পক্ষে এসেছে। ওই নারী তাঁর পাঁচ বছরের বৈবাহিক জীবনে করা গৃহকর্মের জন্য ৫০ হাজার ইউয়ান পাবেন। বাংলাদেশি মুদ্রায় তা সাড়ে ছয় লাখ টাকার বেশি। এছাড়া মাসিক খোরপোশ হিসেবে ২ হাজার ইউয়ান পাবেন স্ত্রী। আজ বুধবার বিবিসি অনলাইন এ খবর প্রকাশ করেছে।

মামলা ও আদালতের রায় নিয়ে চীনে ব্যাপক তর্ক-বিতর্ক হচ্ছে। অনেক বলছেন, আদালত পাঁচ বছরের পারিশ্রমিক হিসেবে ওই নারীকে যে পরিমাণ অর্থ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন, তা খুবই কম।
চীনে নতুন দেওয়ানি আইন চালুর পর বেইজিংয়ের বিচ্ছেদ আদালত থেকে ঐতিহাসিক রায়টি এল। চলতি বছরই চীনে নতুন দেওয়ানি আইন কার্যকর হয়। সেই আইনের আলোকে রায় দিলেন আদালত।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.