ট্রেন যাবে সোনামসজিদ বন্দরে, মাঠ পর্যায়ে জরিপ কাজ শুরু

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
বাস্তবায়ন হতে চলেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শহর হতে দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম সোনামসজিদ স্থলবন্দর পর্যন্ত রেললাইন সম্প্রসারণ কাজ। সম্ভাব্যতা যাচাই শেষে মাঠ পর্যায়ের জরিপ কাজ শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে রবিবার (১৫ ফেব্রুয়ারী) সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন ও প্রকল্প এলাকা সরেজমিনে পরিদর্শন করা হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ, জরিপ কাজে নিয়োজিত ইন্সটিটিউট অব ওয়াটার মোডেলিং অব বাংলাদেশ-আইবিএম’র প্রতিনিধিবৃন্দ, জেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জামাল আব্দুল নাসের পলেন, উপ-দপ্তর সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, সদস্য কামাল হোসেনসহ অন্যান্যরা। এসময় তারা প্রথমে চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন ও পরে সোনামসজিদ স্থলবন্দরগামী সম্ভাব্য রেললাইনের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করেন।

ইন্সটিটিউট অব ওয়াটার মোডেলিং অব বাংলাদেশ-আইবিএম’র সার্ভেয়ার সানোয়ার হোসেন জানান, এখন থেকে আগামী ৩ মাসে যেই স্থান দিয়ে রেললাইন যাবে সেই স্থানগুলোর বিভিন্ন বিষয় ও উপাদান নিয়ে জরিপ কাজ চলবে। এছাড়াও চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন থেকে সোনামসজিদ স্থলবন্দর পর্যন্ত ৩১ কিলোমিটার পথে যে ৩টি স্টেশন নির্মাণ করা হবে তার জায়গা নির্ধারণ করা হবে। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে পাইকোড়তলা হয়ে মাঠের মধ্য দিয়ে শিবগঞ্জ-কানসাট হয়ে বাঘিতলা অতিক্রম করে সোনামসজিদ স্থলবন্দর পর্যন্ত রেললাইন যাবে। স্থানীয় জনসাধারণের সুবিধামতো জনপ্রতিনিধিদের পরামর্শ নিয়ে প্রতি ১০-১১ কিলোমিটার পর পর ৩টি স্টেশনের জায়গা নির্ধারন এবং জরিপ কাজ শেষেই রেললাইন সম্প্রসারণ নির্মানের কাজ শুরু করা হবে বলে জানান তিনি।
জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ বলেন, আমরা বালিয়াডাঙ্গা, বারোঘরিয়া, মহারাজপুর ও নয়ালাভাঙ্গা চার ইউনিয়নের মধ্যস্থল কুপা মাঠ পরিদর্শন করেছে জরিপ কাজে নিয়োজিত সার্ভেয়াররা। এখানে জনসাধারণের সুবিধার জন্য একটি রেলস্টেশন নির্মাণের সুপারিশ করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনা নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজ মাঠে সোনামসজিদ স্থলবন্দর পর্যন্ত রেললাইন সম্প্রসারণ কাজের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। জরিপ কাজের মধ্য জনগণের দাবি পূরণ হতে চলেছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অর্থনীতিতে আসবে ব্যাপক উন্নয়ন। এছাড়াও ভারত থেকে আমদানিকৃৃত বিভিন্ন পন্য কম খরচে আনতে ব্যাপক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে এই রেললাইন

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.