বাগেরহাটে স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

১৭

আল আমিন খান সুমন,বাগেরহাট.
বাগেরহাটের শরণখোলায় বিথিকা রানী নামের অষ্টম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার উত্তর রাজাপুর আমতলী গ্রামে তপন কুমার শীলের কন্যা বিথিকা রানী রান্না ঘরের আড়ার সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে বলে প্রতিবেশীরা জানায়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট মর্গে প্রেরণ করেছে।
প্রতিবেশী বিধান মাঝী জানান, প্রতিদিনের মত পিতা তপন কুমার শীল রাজাপুর বাজারে তার সেলুনে এবং মাতা রেনু রানী এলজিডি রাস্তা সংস্কারের কাজে বাড়ী থেকে বেড়িয়ে যায়। বাড়ীতে কেউ না থাকার সুযোগ নিয়ে বিথিকা রান্না ঘরের আড়ার সাথে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করে। সে উপজেলার রাজাপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী।

বিথিকার ব্যবহৃত ফোনে কয়েকটি ক্ষুদ্র বার্তা থেকে ধারনা করা হচ্ছে, সোমবার রাত থেকে তার প্রেমিক তাকে নানা ভাবে হুমকী ও ভয় ভীতি প্রদর্শন করছিল। এক পর্যায়ে ভীত হয়ে কিশোরী বিথিকা আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় বলে পুলিশ সুত্র নিশ্চিত করেছে।
খবর পেয়ে রায়েন্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন, শরণখোলা থানার এস আই স্বপন কুমার সরকার ও ইউপি সদস্য জাকির হোসেন খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। শরণখোলা থানার ওসি সাইদুর রহমান জানান, এ ঘটনায় শরণখোলা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.