বগুড়া থেকে পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা এক পক্ষের

১১

বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের অফিস দখল নিয়ে সরকার দলীয় দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের পর অনির্দিষ্টকালের জন্য পরিবহন ধর্মঘট আহবান করেছে এক পক্ষ। মোটর মালিক গ্রুপের সাবেক আহ্বায়ক ও জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মঞ্জুরুল আলম মোহনকে গ্রেফতারের দাবিতে এই পরিবহন ধর্মঘটের আহ্বান করা হয়।
মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুর দুইটার দিকে পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেন বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও যুবলীগ নেতা আমিনুল ইসলাম। মঙ্গলবার দুপুর থেকে বগুড়া জেলায় এবং বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) থেকে উত্তরবঙ্গ জুড়ে পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেয়া হয়।

এদিকে দুপুর দেড়টার দিকে আমিনুল গ্রুপের লোকজন চারমাথা কেন্দ্রীয় বাসটার্মিনালের ভিতরে প্রবেশ করে মিছিল শুরু করে। পুলিশ বাধা দিলে পরিবহন শ্রমিকরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেন। এসময় পুলিশ রাবার বুলেট ছুড়ে শ্রমিকদেরকে নিবৃত্ত করে। পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করে। এরপর থেকে চারমাথা ও তার আশেপাশে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আমিনুল গ্রুপের লোকজন সমবেত হয়ে টার্মিনালে প্রবেশের চেষ্টা করলে পুলিশের বাধার মুখে তারা ফিরে যান। পরে আমিনুল ইসলাম সাংবাদিকদের সামনে পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেন। এ সময় আমিনুলের বাবা বগুড়া মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুল লতিফ মন্ডল সেখানে উপস্থিত ছিলেন।
বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রশিদ বলেন, পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে আছে। আইন শৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করা হলে কোন পক্ষকেই ছাড় দেয়া হবে না।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.