টিকা নিলেও সবাইকে মাস্ক পরতে হবে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

করোনাভাইরাসের টিকা নিলেও সবাইকে মাস্ক পরার নিদের্শনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) মন্ত্রিসভার বৈঠকে তিনি এ নির্দেশনা দেন। বিষয়টি জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খোন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।
এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, একটা নির্দেশনা থাকবে; সবাইকে মাস্কটা পরতে হবে। মাস্ক ব্যবহার করা এবং হাত ধোয়া অব্যাহত রাখতে হবে। টিকা যারা নিয়েছেন তাদেরকেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, সেকেন্ড ডোজ নেওয়ার জন্য ৮-১২ সপ্তাহ টাইম লাগে। ১৫ দিনে নিতে হবে বা এক মাসের মধ্যে নিতে হবে এমন না, এটা তিন মাস পর্যন্ত ইফেকটিভ থাকে। আমরা চাচ্ছি খুব তাড়াতাড়ি সেকেন্ড ডোজ দিয়ে দেওয়ার। এক থেকে দেড় মাসের মধ্যে সেকেন্ড ডোজ দিয়ে এগুলো তাড়াতাড়ি শেষ করার চেষ্টা আছে আমাদের বলে জানান তিনি।
ভ্যাকসিনের ডেট এক্সপায়ার্ড বিষয়ে নির্দেশনা দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ভ্যাকসিন যাতে ডেট এক্সপায়ার্ড না হয় সেটাও দেখতে হবে। তবে আজকে কত লোক টিকা নেয় তার ওপর নির্ভর করে দেখতে হবে। আমাদের ডিসি ইউএনও থেকে সবাইকে এ বিষয়ে বলা উচিত।
ফ্রন্টলাইনারদের টিকা দেওয়ার ব্যাপারে গুরুত্ব দিয়ে তিনি বলেন, আমাদের বাহিনীগুলো আর পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের দ্রুত টিকার আওতায় নিয়ে আসতে হবে। ফ্রন্টলাইন ফাইটার্স চিকিৎসাকর্মী ‘ল’ এনফোর্স এজেন্সি এবং আমাদের বাহিনীগুলো যারা অ্যাকটিভলি কাজ করছে তাদের আগে টিকা দেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ।

আমাদের দলীয় নেতাকর্মীরাও যথেষ্ট কাজ করছে। তারা চাইলেও রেজিস্ট্রেশন করতে পারে। নিবন্ধন প্রক্রিয়াকে আরও সহজ ও সম্প্রসারিত করা হবে বলেও জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
তিনি বলেন, সবার একটা আইডি কার্ড থাকতে হবে যেটা দেখে বোঝা যাবে তারা ভ্যাকসিন নিয়েছে। এটা দেখিয়ে তারা সেকেন্ড ডোজ নেবে। এটা তাদের কাছে থাকবে, এর মধ্য দিয়ে যারা দেশের বাইরে যাবে বা কোনো কাজ করবে তাদের সনদ হিসেবে এটি কাজ করবে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.