সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা মামলায় ৪৬ বিএনপি নেতাকর্মির হাইকোটে আগাম জামিন

॥ আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি ॥
আদমদীঘির সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থীর নির্বাচনী অস্থায়ী কাম্পে হামলা, অগ্নিসংযোগ পোষ্টার ছেড়া সংক্রান্ত দায়ের করা মামলায় বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ সমর্থিত ৪৬জন আসামীকে হাই কোট এক মাসের আগাম জামিন দিয়েছেন। জামিনে মেয়াদ শেষে তাদের বিচারিক (নি¤œ) আদালতে আত্মসোমর্পন করতে আদেশ দেন হাই কোট ব্রেঞ্চ। গত ২৭ জানুযারী বুধবার আসামীদের জামিনের আবেদনের প্রেক্ষিতে শুনানী শেষে হাই কোটের বিচারপতি হাবিবুর গনি ও বিচারপতি মো; রিয়াজ উদ্দিন খানের সমন্বয়ে গঠিত ব্রেঞ্চ এ আদেশ প্রদান করেন বলে সান্তাহার পৌরসভার নতুন মেয়র বিএনপির তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু জানান। আদালতে আবেদনকারিদের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান। তার সঙ্গে ছিলেন আজমল হোসেন খোকন।

উল্লেখ্য : পৌরসভা নির্বাচনে দ্বিতীয় ধাপে গত ১৬ জানুয়ারী আদমদীঘির সান্তাহার পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী ছিলেন আশরাফুল ইসলাম মন্টু ও বিএনপি মনোনীত ধানেন শীষের প্রার্থী ছিলেন তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু। নির্বাচন প্রচারণা কালে গত ১১ জানুয়ারী রাতে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আশরাফুল ইসলামের নির্বাচনী অস্থায়ী ক্যাম্পে হামলা অগ্নিসংযোগ ও পোষ্টার ছেঁড়া সংক্রান্ত ঘটনায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আশরাফুল ইসলাম মন্টু বাদি হয়ে গত ১২ জানুয়ারী বিএনপি ধানের শীষের সমর্খক ৪৬জন বিএনপির নেতাকর্মিদের আসামী করে আদমদীঘি থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আসামী পক্ষ হাই কোটে আগাম জামিনের আবেদন করেন। আদালত এক মাসের আগাম জামিন মঞ্জুর করে নিম্ বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পনের আদেশ প্রদান করেন। ওই নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী তোফাজ্জল হোসেন ভুট্টু মেয়র নির্বাচিত হন।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.