1. zahersherpur@gmail.com : abu zaher Zaher : abu zaher Zaher
  2. Bijoybangla2008@gmail.com : bijoybangla :
  3. harezalbaki@gmail.com : Harez :
  4. krKhayer29@gmail.com : khayer :
  5. mannansherpur81@gmail.com : mannan :
  6. wadut88@gmail.com : wadut :
নন্দীগ্রামে কার্তিকের শুরুতেই কৃষকের ঘরে নতুন ধান - বিজয় বাংলা
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সাতক্ষীরায় স্বর্ণের ১৬ বারসহ পাচারকারী আটক আইজিপির সঙ্গে বৈঠক শেষে যা বললেন বিএনপি নেতারা বিএনপি নেতা মজিদকে আটকের প্রতিবাদ জানিয়েছেন শেরপুর বিএনপি নেতৃবৃন্দ ৩০কেজি গাঁজা ও ঈগল পরিবহনের সুপারভাইজারসহ আটক ৩ ধুমপান প্রতিরোধে করনীয় মধুখালীতে শীর্ষক কর্মশালা আওয়ামীলীগ কেন জানি বিএনপি-জাতীয় পার্টির মত হয়ে যাচ্ছে: হুইপ স্বপন জমি বিরোধের জের- বৃদ্ধকে কুপিয়ে হত্যা ফুলবাড়ীতে স্কাউটস ভিত্তি স্থাপন ও শীতকালী ক্রীড়া প্রতিযোগীর শুভ উদ্বোধন নোয়াখালীতে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার আদমদীঘিতে ভ্রাম্যমান আদালতে জাটকা মাছ জব্দ, বিক্রেতার জরিমানা ধুনটে ১০১ পিছ ইয়াবাসহ যুবক গ্রেপ্তার ধুনটে মোবাইলে আসক্ত স্কুল ছাত্রের লাশ উদ্ধার শেরপুরে বিএনপি নেতা আটক কাজিপুরে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও পতাকা প্রদান অনুষ্ঠিত স্বস্তির জয় নিয়ে শেষ ষোলতে আর্জেন্টিনা পাবনায় ছেলের সঙ্গে এসএসসি পাস করলেন স্ত্রী মধুখালীতে কুমড়ার বাম্পার ফলন ফুলবাড়ী পৌরসভার সভাকক্ষে শহর সমন্বয় কমিটির আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  ডায়াবেটিস প্রতিরোধে নিজে উদ্যোগী ও সচেতন হতে হবে : ডেপুটি স্পিকার নোয়াখালীতে গরু চুরির আতঙ্কে র্নিঘুম রাত, পাহারায় গৃহস্থ ও খামারিরা

নন্দীগ্রামে কার্তিকের শুরুতেই কৃষকের ঘরে নতুন ধান

  • সর্বশেষ সংস্করণ : রবিবার, ৩০ অক্টোবর, ২০২২
  • ৪৪ বার দেখা হয়েছে

।। নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি ।।
বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলায় কার্তিক মাসের শুরুতেই কৃষকের ঘরে উঠতে শুরু করেছে নতুন ধান। ধানের ফলন ভাল হওয়ায় দাম কম হলেও কৃষকেরা বেশ খুশি। কৃষকরা বলছেন জমি ফেলে রাখার চাইতে আগাম চাষ করে ঘরে তুলে সেই জমিতে রবি শস্য আলু অথবা সরিষা চাষ করবেন। অগ্রহায়ণ মাসের শুরু থেকে পুরোদমে ধান কাটা শুরু হবে পুরো উপজেলা।
এই উপজেলায় আগাম চাষ করা বিনা-১৭ ও ব্রি নতুন ৯০ জাতের ধানের চাষ করা হয় সবচেয়ে বেশি। চারা রোপণের ১০০ থেকে ১১০ দিনের মধ্যে ধান ঘরে তুলতে পারার কারণে এই উপজেলার কৃষকরা গত ৬ বছর ধরে বিনা-১৭ ধানের চাষ করে আসছেন। আর মিনিকেট ধানের চাষ হয় দীর্ঘদিন ধরে। ধান চিকন হওয়ায় বিনা-১৭ ও মিনিকেট ধানের চাউলের চাহিদাও রয়েছে ব্যাপক। উপজেলার ফসলের মাঠ ঘুরে দেখা গেছে ৩০ ভাগ জমির ধান পাকতে শুরু করেছে। কার্তিক মাসে মাঠে তেমন কাজ না থাকায় শ্রমিক সংকটও নেই। এ কারণে মাঠে পেকে যাওয়া ধান কেটে ঘরে তুলছেন কৃষক।
নন্দীগ্রাম পৌরসভার পূর্বপাড়ার কৃষক ইলিয়াছ আলী বলেন, পাঁচ বিঘা জমিতে বিনা-১৭ জাতে ধান চাষ করা হয়েছে। আষাঢ় মাসের শেষ সপ্তাহে চারা রোপণ করে কার্তিক মাসের শুরুতেই ধান কেটে ঘরে তুলছেন। প্রতি বিঘা জমিতে খরচ হয়েছে ১০ হাজার টাকা। আশা করা যাচ্ছে কাটা মাড়াই শেষে ১৮-২০ মন ধান ঘরে তুলবেন।
কৃষক রাজু আহমেদ জানান, এবার আমনের ফলনও ভালো, বাজারে ধানের দাম ভালো রয়েছে। এ ধান কেটে জমিতে রবি শস্য আলু অথবা সরিষা চাষ করবেন। হাট-বাজার গুলোতে আগাম জাতের নতুন ধান উঠতে শুরু করেছে। বিক্রি হচ্ছে ব্রি-৯০ নতুন জাতের ধান ১৮০০ থেকে ১৯৫০ টাকা ও বিনা-১৭ জাতের ধান ১২০০ টাকা মণ দরে।
নন্দীগ্রাম উপজেলা কৃষি অফিসার মো. আদনান বাবু বলেন, আমন মৌসুমে এবারও ভাল ফলন হয়েছে। এই উপজেলায় ১৯ হাজার ৭৬০ হেক্টর জমিতে আমন চাষ করা হয়েছে। এরমধ্যে ২ হাজার ৯৪৭ হেক্টর জমিতে আগাম জাতের ব্রি-৯০, ব্রি-৭৫, বিনা-১৭ ও বিনা-৭ ধানের চাষ হয়েছে।

Alal Group

 

Alal Group

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই বিভাগের আরও খবর
© সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিজয় বাংলা
Theme Download From ThemesBazar.Com
RSS
Follow by Email