1. zahersherpur@gmail.com : abu zaher Zaher : abu zaher Zaher
  2. Bijoybangla2008@gmail.com : bijoybangla :
  3. harezalbaki@gmail.com : Harez :
  4. mannansherpur81@gmail.com : mannan :
  5. wadut88@gmail.com : wadut :
বগুড়ায় অপহরনের ১ মাস ১০ দিনেও পর ফোনে, লাশের সন্ধান দিল অপহরণকারী! - বিজয় বাংলা
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
কয়রায় বজ্রপাতে যুবকের মৃত্যু জাতীয় মোডোকোয়ান পুমছে তায়কোয়াকোনডো প্রতিযোগিতায় স্বর্ণপদক পেল কয়রার ছেলে রুবেল ও আমির হামজা কাউনিয়ায় ফেন্সিডিল ও গাঁজাসহ আটক ৫ খুলনায় এক সপ্তাহ বাস-ট্রেন চলাচল বন্ধ দেওয়ানগঞ্জ পানিতে ডুবে কৃষকের মৃত্যু ঢাকায় ছিন্নমূল ও সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের নিয়ে ‘আম উৎসব’ শেরপুরে ভূমি ও গৃহহীনরা পেলেন স্বপ্নের ঠিকানা একদিনে আরও ৮২ জনের মৃত্যু বাতিল হচ্ছে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা মুজিববর্ষে শাজাহানপুরে নতুন ঘর পেল আরও ১৩ পরিবার বগুড়ায় আরও ৩জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৭৪ সোমবার থেকে ফাইজারের টিকা দেওয়া শুরু মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেল নবীনগরের ১৫ টি পরিবার স্বপ্নের ঠিকানায় নন্দীগ্রামের ৮০ ভূমি ও গৃহহীন পরিবার টাঙ্গাইলে নতুন করে করোনায় আরো ২ জনের মৃত্যু, মোট মৃত্যু ৯৮ বিশ্বে আরেক ভয়ংকর ‘মহামারি’ আসছে, যার কোনো টিকা হবে না বিদ্যুৎস্পৃষ্টে পিতা-পুত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু! টাঙ্গাইলে ২য় ধাপে নতুন ঘর পেলো ১১৩০ পরিবার প্রেমের তাজমহল’ নির্মাতার ছবিতে মাহিয়া মাহি একহালি গোল দিয়ে জয় ছিনিয়ে নিল জার্মানি

বগুড়ায় অপহরনের ১ মাস ১০ দিনেও পর ফোনে, লাশের সন্ধান দিল অপহরণকারী!

  • সর্বশেষ সংস্করণ : শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২১
  • ১৫ বার দেখা হয়েছে
স্টাফ রিপোর্টার  : 
বগুড়ার গাবতলীতে মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণ করা শিশুকে বাড়ির কাছে পুকুরে ওই শিশুটির মরদেহ ফেলে রাখা হয়। অবশেষে মুক্তিপণ না পেয়ে দেড় মাস পর অপহরণকারী নিজেই ফোন করে মরদেহের সন্ধান দেয় পরিবারকে।
অপহরণকারীর ফোনের সূত্র ধরে বৃহস্পতিবার ( ২১ জানুয়ারি) রাতে শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
হৃদয় বিদারক এই ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার গাবতলী উপজেলা রামেশ্বরপুর ইউনিয়নের নিশুপাড়া গ্রামে। আর অপহৃত শিশু হানজেলা (৬) নিশুপাড়া গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী পিন্টু মিয়ার ছেলে।
রামেশ্বরপুর ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য  ও নিশুপাড়া গ্রামের বাসিন্দা মানিক মিয়া জানান, গত ১৩ ডিসেম্বর বাড়ির পাশে খেলতে গিয়ে শিশু হানজেলা অপহৃত হয়। ঘটনার দিনই বিষয়টি নিয়ে থানায় জিডি করা হয়। ছেলে অপহরণের খবর পেয়ে দুদিন পর তার বাবা দেশে ফিরে আসেন। এদিকে ওই শিশুর মা তাছলিমার মোবাইলে ফোন করে প্রথমে ৫ লাখ ও পরে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারী। টাকা না দিলে ছেলেকে হত্যা করা হবে বলে জানায়। শিশুটির বাবা-মা অপহরণকারীর  মোবাইল নম্বর নিয়ে থানা পুলিশের কাছে ধর্না দেন। কিন্তু গত ১ মাস ১০ দিনেও শিশুটি উদ্ধার কিংবা অপহরণকারীকে গ্রেফতার করতে পারেনি গাবতলী মডেল থানা পুলিশ।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় যে নম্বর থেকে মুক্তিপণ চাওয়া হয়েছিল সেই একই নম্বর থেকে শিশুটির মাকে ফোন করে টাকা না পাওয়ায় তার ছেলেকে হত্যা করা হয়েছে বলে জানানো হয়। সেই সাথে তাদের বাড়ির পাশের পুকুরে মরদেহ আছে বলেও জানায় অপহরণকারী। পরে পুকুর থেকে পলিথিনে মোড়ানো এবং ইট বেঁধে পানিতে ডুবে রাখা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। গাবতলী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূরুজ্জামানের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, অপরাধী যে কেউ হোক, অতি দ্রুত অপরাধীকে ধরা হবে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় খবরটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
© সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত © ২০২১ বিজয় বাংলা
Theme Download From ThemesBazar.Com
RSS
Follow by Email