সুনামগঞ্জে দুই সহোদরসহ ৩জনকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি, সুনামগঞ্জ:
সুনামগঞ্জে দুই সহোদরসহ ৩জনকে ইয়াবাসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রামের বিল্লাল মিয়ার দুই ছেলে ইব্রাহিম খলিল (২৯) ও বাদল মিয়া (২৭)। অন্যজন হলেন- তাহিরপুর সদর ইউনিয়নের ধুতমা গ্রামের মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে জনি মিয়া (২৫)।

এব্যাপারে পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়- মাদকের গ্রাম হিসেবে পরিচিত জেলার তাহিরপুর উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের কামড়াবন্দ গ্রাম। প্রশাসনের চোখে ফাঁকি দিয়ে দীর্ঘদিন যাবত এই গ্রামের একাধিক স্পটে মদ,গাঁজা ও ইয়াবা বিক্রি করছে স্থানীয় কয়েকজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। গতকাল ১১ই জানুয়ারী সোমবার সন্ধ্যায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে মাদকের গ্রাম কামড়াবন্দ থেকে দুই সহোদর ইব্রাহিম খলিল ও বাদল মিয়াসহ জনি মিয়াকে গ্রেফতার করে। পরে তাদের শরীর তল্লাশি করে ৩০পিছ ইয়াবা পাওয়া যায়। এঘটনার প্রেক্ষিতে রাত সাড়ে ১০টায় ইয়াবাসহ গ্রেফতার হওয়া দুই সহোদরসহ ৩জনের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। এর আগে মাদকের গ্রাম কামড়াবন্দের মৃত বদ মিয়ার ছেলে হাবিব সারোয়ার আজাদ মিয়াকে ইয়াবাসহ এলাকাবাসী আটক করে গণধৌলাই দিয়ে থানায় সোপর্দ করেছিল। পরে আজাদ মিয়ার ফাঁসির দাবীতে থানা ঘেরাও করাসহ মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। আর এই ঘটনার পর থেকে কামড়াবন্দ গ্রামটি মাদকের গ্রাম হিসেবে সর্বস্তরের মানুষের কাছে পরিচিতি লাভ করে।
বাদাঘাট ফাঁড়ি থানার ইনচার্জ এসআই মাহমুদুল হাসান বলেন- গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইয়াবাসহ ৩ যুবককে হাতেনাতে গ্রেফতার করার পর মামলা দিয়ে রাতে তাহিরপুর থানা হাজতে রাখা হয়।
তাহিরপুর থানার ওসি আব্দুল লতিফ তরফদার এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাংবাদিকদের বলেন-মাদক মুক্ত সমাজ গড়ার জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.