টাকা

***= টাকা =***

-নাজমুল হাসান পলাশ, 

শিক্ষক(বাংলাদেম ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান)

সভ্যতার এই ঊষাকালে

যেদিকেতে তাকাই আমি

চতুর্দিকে শুধই দেখি

টাকা কড়ির ঝনঝনানি।

টাকা যেন সবার কাছে

আলাদিনের চেরাগ সম

মর্তের বুকে করা যায় না

এমন কাজ নেইকো হেন।

ক্ষমতা যশ  উচ্চপদ

টাকা করছে নির্ধারণ

সংস্কৃতির অবোধ ধ্বজাধারী

টাকার মাপে বিতরণ।

অর্থ অনর্থের মুল

বলে কিন্তু গুণীজন,

স্বার্থের নির্মম কোলাহলে

সংসারে ভীষণ অনল।

বিপদ আর বিলাসের

শত্রুতা কিংবা বন্ধুত্বে

মহৎ আর পিশাচের

জন্ম সবার টাকাতে।

টাকা যখন থাকে হাতে

সত্য তখন নীরব থাকে,

টাকা না থাকলে সাথে

মিথ্যারা সব বিজয় হাঁকে।

টাকা আনে স্বচ্ছলতা

কত সুহৃদ বন্ধুজন

সুদৃঢ় হয় না কভু

ভালোবাসার অটুট বন্ধন।

ভাই-বোন বা পিতাপুত্র

সময়েতে হয় যে পর

টাকার লাগি সবে মিলে

করে মিষ্টি সমাদর।

টাকার গন্ধে বধূর বুকে

আদর সোহাগ উছলে পড়ে

ধরার তলে হঠাৎ যেন

স্নিগ্ধ মধুর স্বর্গ রচে।

টাকা না পাইলে কেহ

আর নাহি কথা কয়,

বিপদ কালে দু:খের দিনে

কেহ নাহি সঙ্গে রয়।

টাকায় দান নব জীবন

টাকাই আবার জীবন কাড়ে,

তাইতো আজি সবাই দেখি

টাকাকেই বড় আপন ভাবে।

আমিও আজি ভাবছি বসে

সরিয়ে ভালোমন্দের নীতিশাস্ত্র

চলনে বলনে শয়নে স্বপনে,

টাকাই হবে জীবনের মূলমন্ত্র।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.