শিবগঞ্জে নিজের ফসল বিনষ্ট করে থানায় অভিযোগ! গোপন তথ্য ফাঁস

শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের টেপাড়াগাড়ী পূর্বপাড়া গ্রামে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে নিজের ফসল বিনষ্ট করে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দাখিল করেছে এলাকার প্রভাবশালী মোবারক আলী। এঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সত্যতা না পাওয়ায় দুই পক্ষকে থানায় হাজির হওয়ার নোটিশ প্রদান করেছেন।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার রায়নগর ইউনিয়নের টেপাগাড়ী পূর্বপাড়া গ্রামের কৃষক আব্দুস ছামাদ তার ছেলেদেরকে নিয়ে স্বাভাবিক ভাবে জীবন যাপন করে আসছে। অসহায় কৃষক আব্দুস ছামাদের সহিত এলাকার প্রভাবশালী মোবারক আলী পারিবারিক কন্দলের কারনে ও পৈত্রিক সম্পত্তির ভাগ বাটোয়া নিয়ে মত বিরোধ সৃষ্টি হওয়ায় সে তাকে হয়রানী ও সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে তার নিজের জমির ফসল বিনষ্ট করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

এতেও ক্ষান্ত না হয়ে প্রতিপক্ষ পূর্বপরিকল্পিত ভাবে আব্দুস ছামাদের পরিবারের সদস্যদেরকে মারপিট করে গুরুত্বর রক্তাক্ত জখম করে। গুরুত্বর আহত অবস্থায় এলাকাবাসী আব্দুস ছামাদের ছেলে আবু তাহের ও স্ত্রী পিয়ারা বেগমকে শিবগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে। কর্তব্যরত ডাক্তার চিকিৎসা শেষে বাড়ীতে বিশ্রামে থাকার পরামর্শ প্রদান করেন। ঘটনাটি ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে নিজেকে নির্দোষ প্রমাণিত করতে মিথ্যা একটি ঘটনা সাজিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ে করেছে বলে আব্দুস ছামাদ জানায়। এব্যাপারে তদন্তকারী উপপুলিশ পরিদর্শক এসআই বিরঙ্গ জানান, পারিবারিক কন্দলের কারণে দুই পক্ষ পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রকৃত ঘটনা উদ্ঘাটন করে উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষকে প্রতিবেদন প্রদান করা হবে। এব্যাপারে শিবগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান জানান, এঘটনায় পৃথক দুটি অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.