তানোর কলমা ইউপি আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী মোসাদ্দেক হোসেন লিটন

মনিরুজ্জামান মনি তানোরঃ লিটনরাজশাহীর তানোরের কলমা ইউনিয়নে (ইউপি) বইছে নির্বাচনের আগাম হাওয়া চায়ের কাপে জমে উঠেছে আলোচনা। এদিকে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দু কেবলমাত্র চেয়ারম্যান পদ ঘিরেই আর্বতিত হচ্ছে। ইতমধ্যে চেয়ারম্যান পদে সম্ব্যব্য প্রার্থীরা মানবিক ও খাদ্য সহায়তা বিতরণ, এলাকার উন্নয়ন এবং ব্যক্তি পর্যায়ে আর্থিক অনুদান প্রদান, প্রচার-প্রচারণা ও গণসংযোগের মাধ্যমে নিজেদের অবস্থান তুলে ধরে ভোটারদের দৃস্টি আকর্ষণ এবং আলোচনায় উঠে আশার চেস্টা করছে। তবে আলোচনার শীর্ষে রয়েছে আর্দশিক ও তরুণ নেতৃত্ব মোসাদ্দেক হোসেন লিটন চৌধুরী।

জানা গেছে, চেয়ারম্যান নির্বাচিত হতে একজন প্রার্থীর যে ধরণের রাজনৈতিক,সামাজিক, পারিবািরক পরিচিতি, আর্থিক স্বচ্ছলতা, ব্যক্তি ইমেজ, উন্নয়ন মানসিকতা ও গ্রহণযোগ্যতা ইত্যাদি প্রয়োজন লিটন সেই সব গুনের অধিকারী সম্পন্ন প্রার্থী। এসব বিবেচনায় নির্বাচনের মাঠে গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণায়

অন্যদের থেকে তিনি এগিয়ে রয়েছে। আওয়ামী লীগের সমর্থনে প্রার্থী হলে তাঁর বিজয় প্রায় নিশ্চিত। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক নেতাকর্মী বলেন, বর্তমান চেয়ারম্যান মাইনুল ইসলাম স্বপন নানা কারণে অনেকটা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এছাড়াও তার সময়ে প্রায় কোটি টাকার বরাদ্দ এলেও তিনি দৃশ্যমান তেমন কোনো উন্নয়ন করতে পারেন নি। এসব বিবেচনায় এবার ইউপিবাসী তরুণ ও নতুন নেতৃত্ব প্রত্যাশা করেছেন।

স্থানীয় রাজনৈতিক বিশ্লেষকগণের অভিমত, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশে মানুষ বিশেষ করে তরুণ প্রজন্ম তরুণ নেতৃত্ব চাই, সেই বিবেচনায় তরুণ নেতৃত্ব লিটন পচ্ছন্দের শীর্ষে রয়েছে।
এ বিষয়ে কলমা ইউপি ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আঃবারী বলেন, যে সময় আওয়ামীলীগের মিছিল মিটিং করতে বিএনিপ সরকারের তান্ডবে ভয়ে কেউ বাড়ি থেকে বের হতো না, সেই সময় লিটন ভাই নেতৃত্ব দিয়ে কলমা ইউপি আওয়ামীলীগকে সুসংগঠিত করেছেন।সেক্ষেত্রে তিনিই আসল নৌকার কান্ডারী।মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের আকুল আবেদন, তিনি যেন ত্যাগী নির্যাতিত এসব ক্ষুদ্র কর্মীকে মুল্যায়ন করেন।
এবিষয়ে মোসাদ্দেক হোসেন লিটন চৌধুরী বলেন, ভোটারদের মানষিকতা ও তৃণমুলের মতামতের ভিত্তিত্বে মনোনয়ন দেয়া হলে তার মনোনয়ন নিশ্চিত

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.