মুজিববর্ষে ৯ লক্ষ গৃহহীন পরিবারকে ঘর দিচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী- পলক

১০

সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি :
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন,  মুজিববর্ষে ৯ লক্ষ গৃহহীন পরিবারকে ঘর দিচ্ছেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। প্রত্যকটি জেলা, উপজেলার গৃহহীন পরিবার ঘর পাচ্ছে।  স্বাস্থ্য সেবার জন্য ৩৩৩ এ সেবা পেয়েছে ২০ লক্ষাধিক মানুষ। ৯৯৯ এ ফোন করে ২ কোটি ৫৭ লক্ষ মানুষ সেবা গ্রহন করেছে। ই সেবার মাধ্যমে ১০ লক্ষ ফাইল সই হয়েছে। এসব ডিজিটাল বাংলাদেশের অবদান। জননেত্রী শেখ হাসিনার অবদান। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত করেছেন।
৩৫ সালের মধ্য বাংলাদেশ শক্তিশালী রাষ্ট্রে পরিনত হবে, ইনশাআল্লাহ।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বপ্নের সফল মানুষ। জাতির পিতা সাড়ে তিন বছরে বাংলাদেশ কে এগিয়ে নিয়ে গেছেন। তাঁর স্বপ্ন কে হত্যা করে ঘাতকরা। দেশের জন্য তিনি নিজের জীবনকে বিসর্জন দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর লালিত স্বপ্নকে বাস্তবায়নের জন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা বাংলাদেশকে উন্নত দেশ হিসেবে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর নেতৃত্বে সবাই এক কাতারে করোনা মোকাবেলায় কাজ করে যাচ্ছেন। করোনাকালিন সময়ে সিংড়ায় ৭০ হাজার মানুষকে খাদ্য সামগ্রী দেয়া হয়েছে। বন্যা, করোনায় আমরা ঘরে বসে থাকিনি। সকল জনপ্রতিনিধি, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগ মানুষের পাশে আছে, থাকবে। করোনায় বাংলাদেশ বিশ্বের কাছে মডেল হিসেবে পরিনত হয়েছে।
প্রতিমন্ত্রী বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় নাটোরের সিংড়া উপজেলার লালোর মাঝগ্রামে ঘর পরিদর্শন শেষে কম্বল বিতরনকালে এসব কথা বলেন।
এসময় প্রতিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর উপহার গৃহহীনদের ঘর প্রদান প্রকল্পের ৩ টি ঘরের কাজ পরিদর্শন করেন এবং ৭০০ পরিবারকে চাদর ও কম্বল প্রদান করেন।
পরে তিনি চৌগ্রাম ইউনিয়নের গৃহহীনদের ঘর পরিদর্শন এবং কম্বল বিতরন করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, নাটোরের জেলা প্রশাসক মো: শাহরিয়াজ, ইউএনও এম এম সামিরুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার ভূমি রকিবুল হাসান, চৌগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম ভোলা,
চৌগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলতাব হোসেন জিন্নাহ, লালোর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাধারন সম্পাদক রুবেল হোসেন প্রমুখ।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.