ধীরে ধীরে কেটে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ

দেশের বিভিন্ন এলাকার শৈত্যপ্রবাহ পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে। আবহাওয়া অধিদফতর (বিএমডি) জানিয়েছে, শীত পরিস্থিতির উন্নতি হলেও এখন সংশ্লিষ্ট এলাকায় মাঝারি থেকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বিরাজ করছে। সর্বশেষ পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী গোপালগঞ্জ, সীতাকুণ্ড, কুমিল্লা বদলগাছি, শ্রীমঙ্গল, তেঁতুলিয়া, রাজারহাট ও চুয়াডাঙ্গায় শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। দু’একদিনের মধ্যে কিছু জায়গায় শৈত্যপ্রবাহ কেটে যেতে পারে। সোমবার (২১ ডিসেম্বর) দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এর আগে রোববার একই এলাকায় তাপমাত্রা ছিল ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে আগের দিন গোটা রংপুর বিভাগ, বরিশাল বিভাগের কয়েকটি এলাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। কিন্তু সোমবারে রংপুর বিভাগের কয়েকটি স্থানে শৈত্যপ্রবাহ থাকলেও বরিশাল বিভাগে এই পরিস্থিতি থেকে মুক্ত হয়েছে।
সাধারণত ব্যারোমিটারের পারদ ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে অবস্থান করলে সেটাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বলা হয়। আর মিটারের পারদ ৬ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে নেমে এলে তা মাঝারি ও ৪ থেকে ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে বলে ধরা হয়। সোমবারের তথ্য অনুযায়ী দেশের সর্বনিম্ন ৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে হিমালয়পর্বত সংলগ্ন এলাকা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়। এদিন ঢাকায় এদিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয় ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা আগের দিন ছিল ১৩.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়াবিদদের মতে, সাধারণত সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ তাপমাত্রার পার্থক্য যত কম থাকে শীতের অনুভূতি তত বেশি থাকে। কেননা, এ ধরনের পরিস্থিতিতে দিনের বেলায় সূর্য ততটা উত্তপ্ত করতে পারে না সংশ্লিষ্ট এলাকায়। মেঘের উপস্থিতিতে এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়। তখন সেখানে শীতের প্রকোপ বেড়ে যায়। তবে মেঘ কেটে গেলে সূর্যকিরণ পৌছে ভূপৃষ্ঠে। তখন কমে যায় শীতের তীব্রতা। বর্তমানে শীত পরিস্থিতি উন্নতির ক্ষেত্রে উল্লিখিত বাস্তবতা ভূমিকা রাখছে বলে বিএমডি সূত্র জানিয়েছে।
এদিকে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা থাকতে পারে এবং দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা থাকতে পারে। গত শুক্রবার থেকে দেশে শৈত্যপ্রবাহ বিরাজ করছে।

উত্তর দিন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রচার করা হবে না.