শাজাহানপুরে ইউপি নির্বাচনে মাঠে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা

0 373

মো. আল আমিন, শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ সালাম, দোয়া, শুভেচ্ছা, বাড়িতে গিয়ে কুশল বিনিময়, হালকা এবং কোথাও কোথাও ভারি আপ্যায়নের মাধ্যমে বগুড়া শাজাহানপুর উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে গন সংযোগে নেমেছেন সম্ভাব্য প্রার্থীরা। যদিও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের সময় সংক্রান্ত কোন তত্থ্য নেই উপজেলা নির্বাচন অফিসে। ২০১৬সালের ৩০জুন এই উপজেলায় ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিলো। সরকারী দলের নেতা কর্মীদের সাথে আঁতাত করে চলা কাউকে দলীয় মোননয়ন না দেয়ার দাবী জানিয়েছেন বিএনপির অনেক নেতা কর্মী এবং সমর্থক।
জানাযায়, উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নে বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকে বর্তমান চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান আতিক। দলীয় মোননয়ন পেলে এবারের নির্বাচনে তিনি আবারো প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন। দলীয় মোননয়ন না পেলে নির্বাচন করবেন না বলে তিনি জানিয়েছেন। এই ইউনিয়নের বাসিন্দা উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল হাকিম। দল থেকে মোননয়ন পেলে এবারের নির্বাচনে একজন প্রার্থী বলে জানিয়েছেন। অপরদিকে আড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি খোরশেদ আলম গত ২বার নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। এবারেও দলীয় মনোনয়ন পেলে নির্বাচনে অংশ নিবেন বলে নিশ্চিৎ করেছেন।

গোহাইল ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে বিজয়ী আলী আতোয়ার তালুকদার ফজু। জনগন চাইলে এবারেও তিনি নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন এবং আমৃত্যু জনগনের সেবা করবেন বলে নিশ্চিৎ করেছেন। তবে তার ভাতিজা উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলী ইমাম ইনোকী নৌকা প্রতীক পেলে নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিৎ করেছেন। এই ইউনিয়নে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন বিএনপি নেতা মিজানুর রহমান মতিন কাজী। দলীয় মোননয়ন পেলে এবারেও নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন এবং যত খারাপ অবস্থাই আসুক মাঠে থাকবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।
খড়না ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান নৌকা প্রতীকে বিজয়ী জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি সাজেদুর রহমান শাহীন। ৫টি বছর তিনি জনগনের সুখে দুঃখে তিনি সাথে ছিলেন। দলীয় মোননয়ন পেলে এবারেও তিনি নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে নিশ্চিৎ করেছেন। অপরদিকে বিএনপি নেতা ফজলুল হক উজ্বল দলীয় মোননয়ন পেলে নির্বাচনে অংশ নেয়ার বিষয়টি নিশ্চিৎ করেছেন।
আশেকপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান নৌকা প্রতীকের মোঃ ফিরোজ আলম। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়েছিলেন। দলীয় মোননয়ন পেলে এবারেও তিনি নির্বাচন করবেন বলে জানাগেছে। বিএনপি বা স্বতন্ত্র থেকে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করবেন এমন কাউকে এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।
মাদলা ইউনিয়নে বিএনপি থেকে নির্বাচিত আতিকুর রহমান আতিক আবারো দলীয় মোননয়ন পাওয়ার ব্যপারে আশাবাদী। এই ইউনিয়ন থেকে দলটির উল্লেখ যোগ্য আর কোন প্রার্থীকে এখন পর্যন্ত মাঠে দেখা যায়নি। তবে স্বতন্ত্র থেকে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ মন্ডল এবং আওয়ামীলীগ থেকে আব্দুল বারি মন্ডলের নাম শোনা যাচ্ছে।
খোট্রাপাড়া ইউনয়নে নৌকা প্রতীকে বর্তমান চেয়ারম্যান উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল ফারুখ। দলীয় মোননয়ন পেলে তিনি আবারো নির্বাচন করে বিজযী হবেন বলে নিশ্চিৎ করেছেন। এই ইউনিয়নে দলটির আরো অন্তত ২জন নতুন মুখ মোননয়ন চাইবেন বলে জানাগেছে। অপরদিকে বিএনপি থেকে দলীয় মোননয়ন পেলে প্রার্থী হবেন সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা ইউনুছ আলী খন্দকার। ইতিমধ্যে তিনি নির্বাচনী প্রচারনা শুরু করে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। নির্বাচনে অংশ নিতে গন সংযোগ করছেন আরেক বিএনপি নেতা শফিকুল ইসলাম শফিক। দলীয় মোননয়ন পেলে জয়ের ব্যপারে তিনি আশাবাদী বলে জানিয়েছেন।
চুপিনগর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা মোজাফ্ফর রহমান। বেশ কয়েকবার পরপর নির্বাচিত হয়ে আসছেন তিনি। এবারেও নির্বাচনে অংশ গ্রহন নিশ্চিৎ করেছেন। দলটি থেকে এবারে মোননয়ন চাইবেন আরেক বিএনপি নেতা ইউপি সদস্য এমরান হোসেন। অপরদিকে আওয়ামীলীগ থেকে দলীয় মোননয়ন চাইবেন মাসুদুর রহমান বাবলু।
আমরুল ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আসাদুজ্জামান অটল। দলীয় মোননয়ন পেলে তিনি আবারো নির্বাচন করবেন বলে জানিয়েছেন। আওয়ামীলীগ থেকে সাইফুল ইসলাম বিমান এবং স্বতন্ত্র থেকে হাবিবুর রহমান নির্বাচন করবেন বলে নিশ্চিৎ করেছেন।
উপজেলার মাঝিড়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান জামায়াত ইসলামী নেতা মওলানা মোঃ আব্দুস সালাম। অনেক বছর ধরে এই ইউনিয়নে তিনি নির্বাচিত হয়ে আসছেন। এবারেও তিনি নির্বাচনে অংশ নেবেন বলে নিশ্চিৎ হওয়া গেছে। আওয়ামীলীগ থেকে মাঠে রয়েছেন নাসির উদ্দিন বাবলু। দলীয় মোননয়ন পেলে আবারো নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বীতার ইচ্ছা পোষন করেছেন উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম রেজা।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সংক্রান্ত কোন নির্দেশনা এখনো পাননি। কবে হবে তাও বলতে পারছেন না।

Loading...