বগুড়ায় ৫লাখ শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ খাওয়ানো হবে

0 11

স্টাফ রিপোর্টার :  ‘ভিটামিন এ খাওয়ান, শিশুমৃত্যুর ঝুঁকি কমান’—স্লোগানে ৪ থেকে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত বগুড়ায় ৫ লাখ ৮৩৩ শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সী ৪ লাখ ৪১ হাজার ৫৭২শিশুকে লাল রঙের ক্যাপসুল এবং ৬ থেকে ১১ মাস বয়সী ৫৯ হাজার ২৬১শিশুকে নীল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।
রোববার সকালে বগুড়ার ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।
জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলনকক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আরিফ রেহমান, দৈনিক করতোয়ার বার্তা সম্পাদক প্রদীপ ভট্টচার্য শংকর, সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার সাজ্জাদ উল হকসহ প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকেরা উপস্থিত ছিলেন।
সভায় ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন জানান, জেলার ১২টি উপজেলার ১০৮টি ইউনিয়নে ও ১২টি পৌরসভায় শিশুদের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর জন্য ২ হাজার ৭৮৬টি অস্থায়ী কেন্দ্র থাকবে। এ জন্য জেলায় স্বাস্থ্য বিভাগ, বেসরকারি স্বেচ্ছাসেবক কর্মী নিয়োজিত থাকবেন।
কোভিড-১৯ এর কারণে লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হবে কিনা এ ব্যাপার জানতে চাইলে তিনি জানান, লক্ষ্যমাত্রা কম হতে পারে। তবে লাখ লাখ শিশুদের স্বাস্থ্যের কথা বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।
তিনিআরও জানান, ৬ থেকে ৫৯ মাস বয়সের সকল শিশু পিজিটিভ বা নেগেটিভ হোক তবুও ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো যাবে। তবে কোন শিশুর যদি শ্বাসকষ্ট বা অন্যান্য গুরুতর অসুখ থাকলে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর প্রয়োজন নেই।

Loading...