নন্দীগ্রামে গণপিটুনিতে গরুচোর নিহত

0 597

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধি :  বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার পল্লীতে গরু চুরি করতে গিয়ে উজ্জল হোসেন (৩২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার রায়পাড়া গ্রামের মৃত নইমুদ্দিনের ছেলে। বৃহস্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১২টার দিকে নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের শেখের মারিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, রাত সাড়ে ১২ টার দিকে উপজেলার শেখের মারিয়া গ্রামের কৃষক বেলাল হোসেনের গোয়াল ঘরের তালা কেটে ভিতরে ঢুকে একটি গাভী গরু চুরির চেষ্টা করে। এ সময় বাড়ির মালিক টেরপেয়ে চিৎকার দেন। চিৎকার শুনে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে চোরদের ধাওয়া দেন। এলাকাবাসী ধাওয়া করে উজ্জল হোসেন নামে এক চোরকে ধরে ফেলে। তাদের মধ্য আরো তিনজন পালিয়ে যায়। এরপর গরু চোর উজ্জল হোসেনকে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় উজ্জল হোসেন।

ভাটরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোরশেদুল বারী বলেন, সম্প্রতি শেখের মাড়িয়া গ্রামে গরু চুরি বৃদ্ধি পায়। ওই গ্রামের বেলালের বাড়িতে গরু চুরি করতে এলে এলাকাবাসী ধাওয়া করে গরুচোরকে ধরে ফেলেন। এসময় তিনজন পালিয়ে যায়। এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে উজ্জল হোসেন নামে এক পেশাদার চোর নিহত হয়। তার বিরুদ্ধে নন্দীগ্রামসহ বিভিন্ন থানায় হত্যা ও ডাকাতি মামলা রয়েছে বলে তিনি জানান।

জানতে চাইলে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ শওকত কবির জানান, গভীররাতে গরু চুরি করতে গিয়ে একজন গণপিটুনিতে নিহত হয়েছে বলে শুনেছি। ঘটনাস্থলে পরির্দশন করে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।

Loading...