একদিন নতুন সূর্য উঠবেই

0 189

নতুন সূর্য উঠবেই, একদম টকটকে লাল একটা নতুন সূর্য। জ্বালিয়ে পুড়িয়ে ছারখার করে দিবে ভয়াবহ করোনার সকল ভয়াবহতা। থাকবে না সামাজিক দূরত্ব নামক মানসিক কষ্ট, আপনারা আবার পরম মমতা আর ভালবাসায় হ্যান্ডশেক করবেন প্রিয়জনদের সাথে, বুকে জড়িয়ে ধরবেন প্রাণের বন্ধুদের, বন্ধুদের সাথে আড্ডায় মেতে উঠবেন চায়ের দোকানে, খেলার মাঠে নামবেন নতুন শক্তি নিয়ে, সবাই ব্যস্ত হয়ে পড়বেন নিজ নিজ কাজে। পৃথিবীতে আবার ফিরে আসবে গতি, সবাই ফিরে পাবেন প্রাণচাঞ্চল্য।

আপনাদের সেই লাল টকটকে নতুন সূর্য আর প্রাণচাঞ্চল্য ফিরিয়ে দেওয়ার অপেক্ষার প্রহর গুণছি আমরা। শুধু দোয়া করবেন, ততদিন যেন শক্তি, সাহস আর মনোবলটা ধরে রাখতে পারি। এমনই প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার নির্বাহী অফিসার মোঃ যোবায়ের হোসেন।

যিনি করোনা সংকটে নিজের উপার্জিত এক মাসের বেতনের সমুদোয় টাকার ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে করোনা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। যিনি দিবারাত্রি ছুটে চলেছেন রাজারহাটের প্রতিটি পাড়ায় মহল্লায়। সাধারণ মানুষ তাকে যেখানেই ডাকছেন, তিনি সেখানেই সাড়া দিচ্ছেন ফেরিওয়ালার মতো। পৃথিবী যেখানে স্থবির, মানবতা যেখানে প্রায় গৃহবন্দি, তখন নিদ্রাহীন ছুটে চলা তার দায়িত্ব বোধের পাশাপাশি মানবিক গুণের বহিঃপ্রকাশ।

মানবতার ফেরিওয়ালার মতো খাদ্য সামগ্রী নিয়ে যখন তিনি নিরন্ন মানুষের দারে উপস্থিত হন তখন তাদের অশ্রুজল দেখে অনেকে মোহিত হন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে নবীন এ প্রশাসক জনগণের প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটাবে বলে আমরা আশাবাদী।

সারাবিশ্বে করোনায় করাল গ্রাসে যখন চারিদিকে মৃত্যুর মিছিল, আতঙ্কিত মানুষ, নিরন্ন মানুষের হাহাকার, বিশ্ব অর্থনীতি যখন বিপর্যস্ত, মানুষের বেঁচে থাকার আলোকিত সূর্য যখন নিভু নিভু প্রায় তখন ” একদিন নতুন সূর্য উঠবেই” তার এধরনের অনূভুতি আমাদের বেঁচে থাকার অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে।
রমেশ চন্দ্র সরকার ( লেখক, শিক্ষক ও সাংবাদিক )
রাজারহাট, কুড়িগ্রাম।

Loading...